+8801303523442 24/7 Open
সফল ই-কমার্স বেচাকেনায় মনকাড়া প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন লেখার নিয়ম

সফল ই-কমার্স বেচাকেনায় মনকাড়া প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন লেখার নিয়ম

কাস্টমার একটি প্রোডাক্ট সম্পর্কে নিশ্চিত না হবার আগে সেটি কেনে না। সে কি কিনতে যাচ্ছে? সেটি তার প্রয়োজন মেটাতে সক্ষম কি না? সেটি তার জন্য উপযুক্ত কিনা? এসকল প্রাথমিক তথ্য তাকে জানতেই হবে।

সকল ই কমার্স সেলার তার প্রোডাক্টের ডেসক্রিপশনে প্রাথমিক এই তথ্য রাখে।তাহলে কি কারনে সবার মধ্যে নির্দিষ্ট একজন সেলারকে বেছে নেন?

এর অনেকগুলো কারনের মধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে মনকাড়া প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন। অনলাইনে লাখো কন্টেন্টের মধ্যে এমন কিছু কন্টেন্ট আমাদের সামনে আসে যা আমাদের থামতে বাধ্য করে। আমরা থামি কারণ আমরা জানতে আগ্রহী হয়, এটি আমার জন্য সঠিক বলে মনে করি।

এই মুহূর্তে ভালো বিজনেস হলেও প্রোডাক্টের ডেসক্রিপশনের কার্যকারিতা বৃদ্ধি নিয়ে কাজ করা জরুরী। যাতে করে আগামীতে আরো ভালো সেল করতে কীভাবে আমাদের পণ্যের বিবরণ আরও বেশি উন্নত করতে পারি।

আজকে ইকমার্স পণ্য বিবরণ উন্নত করার শীর্ষ ৪ উপায় নিয়ে কথা বলবো আর দেখবো সফল ই কমার্স সেলারদের প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন লেখার ধরন ও কৌশল।

কীওয়ার্ড মাথায় রেখে প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন অপ্টিমাইজ

আপনি যে শব্দগুলি ব্যবহার করেন সেগুলি কেবল ক্রেতার উপরে প্রভাব ফেলবে না।এটি SEO এর জন্যও গুরুত্বপূর্ণ ।
অ্যামাজনের সাথে কাজ করা বিক্রয় বিশেষজ্ঞদের মতে , এমন কিছু প্রমাণ রয়েছে যে পণ্যের বর্ণনায় কীওয়ার্ড রাখা – বিশেষত বুলেট পয়েন্টগুলি সার্চে রাঙ্কিং বাড়িয়ে তোলে।

tangle-free vacuums. লিখে সার্চ দিলে কি আসে দেখুন। খেয়াল করবেন সার্চ করা কী ওয়ার্ড প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশনেও রয়েছে।

যখন অ্যামাজনে সার্চ করি তখন কি দেখিঃ

যখন গুগলে একই কীওয়ার্ডগুলি টাইপ করি তখন ফলাফল হিসাবে কী সামনে আসে দেখুনঃ

এই সার্চেও সেই প্রোডাক্ট নিয়ে আসছে। অর্থাৎ প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশনে কী ওয়ার্ডের ব্যবহার সার্চে প্রভাব ফেলে।তাই প্রতিবার প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন লেখার সময় সম্ভব্য সকল নতুন কী ওয়ার্ড রাখুন। সফল ই কমার্স সেলারেরা এই কৌশলে দারুন অভ্যস্ত।

ছবি এবং সমন্বিত মিডিয়ার ব্যবহার

ছবি কথা বলে… একটি প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশনকে আরো বেশি প্রাণবন্ত ও বিশ্বাসযোগ্য করে তোলে ছবি। ৬৩% কাস্টমার মনে করে একটি দুর্দান্ত ছবি প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশনের চেয়েও বেশি গুরুত্বপূর্ণ। প্রোডাক্টের যত বেশি সংখ্যক ছবি দিতে পারবেন সেটি কাস্টমারদের কাছে তত বেশি পছন্দনীয় হবে।

প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশনকে আরো বেশি আকর্ষণীয় করে তুলতে প্রোডাক্টের ছবি, ভিডিও একসাথে প্রদর্শন করতে পারেন।

নিচের ছবিটি দেখুনঃ

এখানে ছবির সাথে ভিভিও দেয়া হয়েছে। এমন একটি প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন সব কাস্টমার পেতে ভালবাসে। খেয়াল করুন ডেসক্রিপশনের বডিতে বুলেট আকারে প্রোডাক্টের মুল ফিচার গুলোর বর্ণনা দেয়া হয়েছে। এগুলো SEO তে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে।

কাস্টমারদের প্ররোচিত করে এমন সকল শব্দ ব্যবহার করুন

১১ টি শব্দের লিস্ট দেয়া হলো যার ব্যবহারে কাস্টমারদের কেনাকাটায় প্ররোচিত করা যায়।

  1. Suddenly
  2. Now
  3. Announcing
  4. Introducing
  5. Amazing
  6. Sensational
  7. Revolutionary
  8. Miracle
  9. Magic
  10. Quick
  11. Hurry

নিচের ছবিটি দেখুন, আপনি কি এই ড্রেসটির জন্য ২০০ ডলার খরচ করতে চাইবেন?

এবার যখন নিচের এই ডেসক্রিপশনটি পড়ুন এবং ভাবুন কি মনে হচ্ছে?

Sensational, New, Substantial Feel, Elegant এই শব্দগুলো পড়ার পরে মনে হচ্ছে না, হুম এটি বেশ দামি ড্রেস। আর এটি হলো প্রভাবশালী শব্দের ক্ষমতা।

এমন আরও কিছু পাওয়ারফুল শব্দের লিস্ট দেখুনঃ

ব্র্যান্ড ভয়েস ও টোনের দিকে নজর দিন

স্টার্টআপ ব্র্যান্ডগুলো এই বিষয়টিকে খুব বেশি গুরুত্ব দিতে চান না। তাদের ভাবনা, এগুলো বড় ব্র্যান্ডের মার্কেটিং কৌশল।কিন্তু এটি একটি ব্র্যান্ডের পারসোনালিটি প্রকাশ করে, অডিয়েন্সদের সাথে যোগাযোগে স্থাপন করতে সহায়তা করে এবং অন্যান্য ব্র্যান্ডগুলোর থেকে আপনাকে আলাদা করে পরিচিত করে। প্রতিটি বড় ব্র্যান্ডের নিজস্ব স্টাইলের ভয়েস টন রয়েছে। বিজনেস বড় করতে চাইলে এটিকে গুরুত্ব দিতে হবে।

প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশন একজন কাস্টমারের সাথে প্রোডাক্টের যোগাযোগ স্থাপন করে তাই ডেসক্রিপশন লিখতে হবে এমন ধরনের ভয়েস ব্যবহার করে ও নজর দিতে হবে টোনে যাতে করে টার্গেট অডিয়েন্স সেটির সাথে সংযুক্তি বোধ করে।

যেমন, কোকাকোলার ব্র্যান্ড ভয়েস হ্যাপিনেস, জয়, এক্সপিরিয়েন্স এবং টোন হলো ফ্রেন্ডলি। নাইকি ব্র্যান্ড এর ভয়েস ও টোন ইন্সপায়ারিং ।

ব্র্যান্ড ভয়েস ও টন হতে পারে, ফানি, সিরিয়াস,রোমান্টিক, আগ্রেসিভ ইত্যাদি আরো অনেক ধরনের। তবে মোটা দাগে সাধারনত ফরমাল ও কাজুয়াল এই দুইভাগে এটিকে ভাগ করা যায়।

কোন ই কমার্স বিজনেস এই দুই ধরনের ব্র্যান্ড ভয়েস ও টোনের মধ্যে কোনটিকে বেছে নিবে সেটি নির্ভর করে তার টার্গেট অডিয়েন্সদের উপর।

নিচের ছবিতে দেখুন,

ড্রেসটির বর্ণনা দেয়া হয়েছে রেগুলার টনে ব্র্যান্ড ভয়েস বর্ণনা মুলক ও বেনিফিত ওরিয়েন্টেড। এই ডেসক্রিপশন ফরমাল ডেসক্রিপশন বলা যায়।

এবার নিচের ছবিটি দেখুন,

ব্র্যান্ড ভয়েস উৎসাহমূলক ও টোন ফ্রেন্ডলি। এটি কেজুয়াল ডেসক্রিপশনের উদাহরন।

এবার নিচের ছবিতে আসুন,


খেয়াল করুন শেষ লাইন, “We think this dress for spring and summer, featuring beautiful shade of Blue” এখানে কাস্টমারকে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। এটির ব্র্যান্ড ভয়েস এডভোকেসিভ ও টোন ফরমাল।

পরিশেষে,

প্রোডাক্ট ডেসক্রিপশনের উন্নতি সাধন একটি চলমান প্রক্রিয়া। সময়ের পরিবর্তনের সাথে কাস্টমারদের পছন্দ ও চাহিদা বুঝে এটিকে উন্নত করতে থাকতে হবে। আপডেট থাকতে হবে সমসাময়িক ট্রেন্ডের সাথে। আপনি যখন একটি প্রোডাক্টের ডেসক্রিপশনকে কাস্টমারদের কাছে সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য করে তুলতে সক্ষম হবেন তবেই অব্যাহত থাকবে আপনার ই কমার্স বিজনেসের সফলতা।শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Close Menu